Tax

প্রবাসীদের আয়কর বিবরণী জমার নিয়ম

January 13, 2018
Non-resident Tax Return Image

আয় বছর ২০১৬-২০১৭ শেষ হয়েছে গত জুন মাসে। তার পরদিন থেকেই অর্থাৎ ০১ জুলাই ২০১৭ থেকেই শুরু হয়ে গেছে ২০১৭-১৮ কর বর্ষের আয়কর রিটার্ন জমা নেওয়া। চলবে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত।

যারা নিয়মিত কর দেন বা খোঁজ-খবর রাখেন তারা জানেন বিগত কয়েক বছর ধরে আয়কর আদায়ের লক্ষ্যে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড প্রতি বছর আয়কর মেলা আয়োজন করে আসছে।

এবছর ১ থেকে ৭ নভেম্বর সপ্তাহব্যাপি আয়কর মেলা অনুষ্ঠীত হয়েছে। মেলা শেষ হয়ে যাওয়ার পরও কর দিবস পর্যন্ত অর্থাৎ ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত কর অঞ্চলগুলোতে চলবে আয়কর মেলা। আর সেখানেও মিলবে আয়কর মেলার যাবতীয় সুবিধা। যারা বাংলাদেশে আছেন তারা চাইলে সহজেই এই সময়ের মধ্যে তাদের রিটার্ন দাখিল করতে পারেন।

বা যারা দেশের বাইরে আয় করেন এবং সেখানেই থাকেন তারা কীভাবে রিটার্ন দাখিল করবেন? তারা কোন আয়ের উপর কর দেবেন?

চিন্তার কিছু নেই। যারা দেশের বাইরে থাকেন এবং নিয়মিত আয়কর বিবরণী দিয়ে থাকেন বা এবারই প্রথমবার দিতে যাচ্ছেন তারাও খুবই সহজে দিতে পারবেন। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড তাদের কথা চিন্তা করেই কিছু ব্যবস্থা রেখেছে।

কোন আয়ের উপর কর দিতে হবে?

কোন বাংলাদেশি যদি কাজের জন্য দেশের বাইরে থাকেন এবং তার যদি বাংলাদেশে করযোগ্য আয় থেকে থাকে তাহলে তাকে আয়কর দিতে হবে।

এখন প্রশ্ন হল, তাকে দেশের বাইরের আয়ের জন্য কী আয়কর দিতে হবে?

উত্তর হল বিদেশে উপার্জিত আয় যদি তিনি দেশে নিয়ে আসেন তাহলে আয়কর বিবরণীতে তাকে সেই আয় দেখাতে হবে। যদি তার দেশের বাইরে উপার্জিত আয় দেশে না নিয়ে আসেন তাহলে তা দেখাতে হবে না এবং তাকে কোনো আয়কর দিতে হবে না।

দেশের বাইরে উপার্জিত আয় তিনি যদি দেশের প্রচলিত আইন মেনে নিয়ে আসেন তাহলে তার উপর তাকে আয়কর দিতে হবে না। এখানে প্রচলিত আইন বলতে সাধারণত আমরা বুঝে থাকি ব্যাংকিং চ্যানেল ব্যবহার করে অন্য দেশ থেকে বাংলাদেশে অর্থ নিয়ে আসা।

এখন তিনি যদি এই মাধ্যম ছাড়া অন্য কোনো উপায়ে টাকা নিয়ে আসেন তাহলে তার উপর আয়কর দিতে হবে কিনা।

প্রথম কথা হল আয়কর তো দিতে হবেই এর বাইরে তিনি অন্য যেভাবেই নিয়ে আসেন না কেনো তা হয়ত হুন্ডির মধ্যে পড়ে যাবে। যেটা অবৈধ। এর জন্য আইনি জটিলতাও সৃষ্টি হতে পারে।

তাই বৈধ পথে বিদেশে অর্জিত টাকা নিয়ে আসাটাই ঝামেলা মুক্ত এবং তা আয়কর বিবরণীতে দেখিয়ে কর দেওয়া থেকে মুক্তও থাকা যায়।

কোথায় রিটার্ন দাখিল করবেন?

প্রথম কথা হল একজন করদাতার বাংলাদেশে যে যে খাতে আয় হচ্ছে তা নির্ণয় করে আয়কর বিবরণী ফর্ম পূরণ করতে হবে। তার উপর করদায় কত তা নির্ণয় করতে হবে।

যারা দেশের বাইরে থাকেন তবে আয়কর বিবরণী দাখিলের সময় আসতে পারেন না তালা সে দেশে অবস্থিত বাংলাদেশি দূতাবাস বা মিশনে গিয়ে তাদের আয়কর বিবরণী দাখিল করতে পারবেন।

তাই করদাতাগণ তাদের বিবরণী ফর্ম ভালো মতো পূরণ করে দরকারি কাগজপত্র সঙ্গে নিয়ে বাংলাদেশি দূতাবাস বা মিশনে গিয়ে আয়কর বিবরণী দাখিল করে নিশ্চিন্ত থাকতে পারেন।

তবে কোনো সরকারি কর্মকর্তা প্রেষণে বা ছুটিতে বিদেশে উচ্চ শিক্ষারত বা প্রশিক্ষণরত থাকলে বা লিয়েনে বাংলাদেশের বাইরে কর্মরত থাকলে উক্ত প্রেষণ বা লিয়েন সমাপ্তিতে দেশে আসার তিন মাসের মধ্যে তার প্রেষণ বা লিয়েন সময়ের সকল বিবরণী দাখিল করতে পারবেন।

লেখাটি bdnews24.com-এ ২১ নভেম্বর ২০১৭-তে প্রকাশিত হয়েছে।

You Might Also Like

No Comments

Leave a Reply

Shares