Money

বেশি ভালোবাসা বেশি লাভ

January 9, 2018
Valentine Image

ঠিক কবে কিভাবে ভ্যালেন্টাইন ডে আনুষ্ঠানিকভাবে পালিত হয়ে আসছে তা নিয়ে বিভিন্ন মতবাদ রয়েছে।

তবে বাংলাদেশে এই দিনটি ভালোবাসা দিবস হিসেবে পালিত হয়ে আসছে ১৪ ফেব্রুয়ারী ১৯৯৩ সাল থেকে।

এটা নিয়ে কোন বিতর্ক নেই।

১৯৯৩ সালে জনপ্রিয় সাপ্তাহিক যায়যায়দিন মাত্র ৩২ পাতার একটি বিশেষ সংখ্যা দিয়ে এই দিনটি বাংলাদেশে প্রচলন করা শুরু করেন লাল গোলাপ খ্যাত শফিক রেহমান।

তারপর থেকে প্রতি বছরই এর ব্যাপকতা বৃদ্ধি পেয়েছে।

শুধু প্রেমিক-প্রেমিকার মধ্যে এই দিনটিকে সীমাবদ্ধ না থেকে মা-বাবা, ছেলে-মেয়ে, পরিবারের সদস্যদের মধ্যে, এমনকি পোষা প্রাণীর মধ্যেও এই ভালোবাসা ছড়িয়ে পড়ে বাংলাদেশে।

মন চায় প্রিয় মানুষটিকে নিয়ে পছন্দের জায়গায় ঘুরে বেড়াতে, ভালো রেস্টুরেন্টে বসে ভালো খাবার খেতে, ভালো উপহার দিতে, মোবাইলে কথা বলতে বা এসএমএস দিতে।

এসব করতেই টাকার দরকার।

সবাই যার যার সাধ্যমতো টাকা খরচ করতে চান।

সেজন্য ব্যবসায়ীরা এই বিশেষ দিনকে সামনে রেখে বিভিন্ন ধরনের অফার নিয়ে হাজির হন।

গ্রামের ফুল চাষী থেকে শুরু করে অভিজাত রেস্টুরেন্ট, নামী-দামী কম্পানি, টেলিভিশন সবাই বিশেষ আয়োজন করে থাকে এই দিনকে ঘিরে।

একটি রিপোর্ট থেকে জানা যায় ২০১৭ সালের প্রথমার্দে মাস্টারকার্ড ‘কনজ্যুমার পারচেজিং প্রায়োরিটিজ সার্ভে’ শীর্ষক একটি জরিপ পরিচালনা করে এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের ১৮টি দেশে তাদের ভোক্তাদের উপর।

এই জরিপ থেকে জানা যায়, এই অঞ্চলের ৪৪% মানুষ তাদের প্রিয়জনকে উপহার দিতে চান। এও দেখা যায় উপহার কিনতে মেয়েদের চেয়ে ছেলেরা ২৫% অর্থ বেশি খরচ করেন।

আর এবারের ভালোবাসা দিবসে বাসার বাইরে গিয়ে খাওয়া-দাওয়া করার পরিকল্পনা করছেন এশিয়ার ৪৮ শতাংশ মানুষ।

অর্থ খরচের দিক দিয়ে সবচেয়ে এগিয়ে আছেন চায়না (২৩২ ডলার) এবং তারপরেই আছে হংকং (১৭০ ডলার)।

তবে গড়ে ৫,৬৮০ টাকা উপহার কিনতে খরচ করবেন বলে জানা গেছে রিপোর্ট থেকে।

কিন্তু বাংলাদেশের মানুষ গড়ে কতো খরচ করবেন?

তবে জরিপের তথ্য না থাকলেও নিচের বর্ণনা থেকে আমরা কিছুটা অনুমান করতে পারবো।

ফুল
ফুল হলো সবচেয়ে ভালো উপহার।

ফুল পেলে আমাদের মন ভালো হয়ে যায়।

ভালোবাসা দিনে শুধু ফুলের দোকানে নয় মহল্লায় মহল্লায় মোড়ে মোড়ে ফুল বিক্রি করতে দেখা যায়।

মেয়েরা চুলের খোপায়, মাথায় ব্যান্ড বানিয়ে পড়ে থাকেন। আবার হাতেও ফুলের মালা বানিয়ে পড়েতে দেখা যায়।

ছেলেদের হাতে দেখা যায় লাল গোলাপ বা রজনীগন্ধা ফুল নিয়ে ঘুরে বেড়াতে। তাই এই দিনে ফুলের চাহিদা বেড়ে যায় অনেক।

কিন্তু এই ফুল কোথা থেকে আসে?

বা এই ফুল বিক্রি করে চাষীরা কতো আয় করে থাকেন?

একটি রিপোর্ট থেকে জানা যায়, ফুলের বেশির ভাগ যোগান প্রায় ৭৫% সরবরাহ আসে যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলা থেকে।

এই ফেব্রুয়ারী মাসে বসন্ত উৎসব, ভালোবাসা দিবস এবং একুশে ফেব্রুয়ারী-কে কেন্দ্র করে ২০ কোটি টাকার ফুল বিক্রি হবে বলে ফুল চাষীরা আশা করছেন।

এতো গেল শুধু ফুলের মূল্য।

কিন্তু এই ফুল জমি থেকে শুরু করে ক্রেতাদের কাছে পৌছে দেয়া পর্যন্ত জড়িত রয়েছেন অনেকেই। এরা সবাই এই ফুল সরবরাহ করে বা বিক্রি করে বাড়তি আয় করে নিবেন।

কিন্তু তারা কতো আয় করবেন সেই হিসেব হয়তো জানা যাবে না। কিন্তু আয় যে ভালো হবে তা বুঝা যাচ্ছে।

মিউজিক
ভালোবাসার সাথে মিশে আছে মিউজিক।

তাই এই দিনকে সামনে রেখে বেরিয়েছে প্রিয় শিল্পীদের প্রিয় গান।

কণ্ঠশিল্পী ন্যান্‌সি ‘বন্ধু’ গানটির ভিডিও ভার্সন বের হচ্ছে অ্যাডবক্স ইউটিউব চ্যানেলে। এ গান সম্পর্কে ন্যানসি বলেন, সফট মেলোডি নির্ভর এই গানটি শুনলে প্রিয় কোন বন্ধুর কথা মনে পড়ে যাবে। গানের কথা লিখেছেন রবিউল ইসলাম।

রবি ও এয়ারটেল-ইয়ন্ডার মিউজিক শ্রুতাদের জন্য নিয়ে এসেছে গানের সম্ভার।

এই গানের ভান্ডারে থাকবে হৃদয় খানের জানিনা বুঝিনা, দীর্ঘ চার বছর পর বালামের গানের শ্রুতারা তাকে আবার ফিরে পাবেন পূর্ণাঙ্গ একটি অ্যালবাম গল্পের শহর-এর মাধ্যমে, শূণ্য’র শুধু আমার, রবি সেরা প্রতিভার অ্যালবাম প্রতিভার আলো এবং সিলভার লাইটসের অ্যালবাম ব্যস্ত শহর।

অ্যালবামের বাইরে গাঙচিল, রবি ও এয়ারটেল-ইয়ন্ডার মিউজিক কিছু একক গান নিয়ে এসেছে।

এগুলো হচ্ছে সামিনা চৌধুরীর আমার চিলেকোঠা মন, মুনের একক তুই কি আমার সুখে থাকার অসুখ হবি, মিনারের গাওয়া তা জানিনা না ইত্যাদি।

এই গানগুলো শুধুমাত্র রবি ও এয়ারটেলের ইয়ন্ডার মিউজিকে শ্রোতারা শুনতে পারবেন।

ভালোবাসি কতটা অ্যালবাম নিয়ে হাজির হচ্ছেন কণ্ঠশিল্পী কাজী শুভ। অ্যালবামে সবগুলো গানের কথা লিখেছেন স্নেহাশীষ ঘোষ, সুর করেছেন কাজী শুভ নিজেই এবং সংগীতপরিচালনা করেছেন রেজওয়ান শেখ। অ্যালবামটি বাজারে এনেছে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান লেজার ভিসন।

শুধু অনলাইন বা মিউজিক প্লেয়ারে গান শুনে কি আর মন ভরে?

বিশেষ দিন মানেই লাইভ কনসার্ট। এটা না হলে যেন ঐ উৎসবটাই পূর্ণ হয় না।

তা ভেবেই দুই বাংলার শিল্পীদের নিয়ে ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট প্রতিষ্ঠান ‘ইভেন্টেলস লিমিটেড’ আয়োজন করতে চেয়েছিলো ‘ফিজআপ ভ্যালেন্টাইন মিউজিক ব্যাশ ২০১৭’।

ভালোবাসা দিবসে বিকেল তিনটা থেকে রাজধানীর বসুন্ধরায় ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টারে এই কনসার্টটি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিলো।

এখানে গান গাওয়ার কথা ছিলো বাংলাদেশের হয়ে ব্যান্ড এলআরবি’র ভোকাল ও গিটারিস্ট আইয়ূব বাচ্চু, হৃদয় খান, ঐশি ও ব্যান্ড ডাকঘর।

ভারতের হয়ে পারফর্ম করার কথা ছিলো ইন্ডিয়ান আইডল সিজন-৪’র তোরসা সরকার ও কলকাতার অর্ক মূখার্জী।

শেষ পর্যন্ত অনিবার্য কারন দেখিয়ে কনসার্টটি স্থগিত করার ঘোষণা দেন আয়োজকরা। কিন্তু কি সেই অনিবার্য কারন তা জানানো হয় নি।

ও প্রিয়া তুমি কোথায় গান গেয়ে অনেক জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন আসিফ আকবর। তিনি এবার প্রথমবারের মত ফাহমিদা নবী’র সাথে গেয়েছেন অমন করে তাকিওনা ভালোবাসা হয়ে যাবে গানটি।

গানের কথা ও সুর করেছেন তরুণ মুনসী। সঙ্গীতায়োজন তানভীর দাউদ রনি ও তরুন মুনসী। উপলক্ষে গানটি প্রযোজনা সংস্থা আর্ব এন্টারটেইনমেন্ট থেকে প্রকাশ করা হবে।

প্রথমবারের মতো দ্বৈত অ্যালবাম নিয়ে এসেছে সংগীতশিল্পী ইমরান ও পড়শী। রবিউল ইসলাম জীবনের কথায় রোমান্টিক ডুয়েট গানগুলোতে কণ্ঠ দিয়েছেন ইমরান ও পড়শী।

অ্যালবামটির সুর ও সংগীতায়োজন করেছেন ইমরান। সিডি চয়েসের ব্যানারে বাজারে আসবে অ্যালবামটি।

কিছু মিউজিক রিলিজ হচ্ছে ইউটিউবে আবার কিছু মিউজিক অনলাইনে।

এই মিউজিক থেকে নিশ্চয় এই বিশেষ দিন উপলক্ষে ভালো আয় হবে এর সাথে জড়িত শিল্পী থেকে শুরু করে প্রযোজনা এবং সরবরাহকারী ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানগুলোর।

মুভি
যারা মুভি দেখতে পছন্দ করেন তারা প্রিয় মানুষকে নিয়ে মুভি হলে যাবেন মুভি দেখতে।

সেই কথা মাথায় রেখে রিলিজ পেয়েছে প্রেমী ও প্রেমী মুভিটি। জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত যৌথপ্রযোজনার মুভিটিতে পশ্চিম বাংলার স্টার জিৎ ও ওমের পাশাপাশি এই প্রথম নুসরাত ফারিয়া অভিনয় করেছেন শুভর সাথে।

বাংলাদেশের পাশাপাশি একই দিনে কাতার, ফ্রান্স, মালয়শিয়া ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে রিলিজ পাওয়ার কথা মুভিটির।

মুক্তির এক সপ্তাহ পর ফেব্রুয়ারীর ১৮ তারিখে কানাডায় মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে। মুভিটি যৌথভাবে প্রযোজনা করেছে বাংলাদেশের জাজ মাল্টিমিডিয়া ও ইনডিয়ার এস কে মুভিজ।

এর বাইরে সিনেপ্লেক্সগুলোতে খুজ নিতে পারেন আপনার পছন্দের কোন মুভি দেখানো হচ্ছে কিনা।

তবে মুভি প্রেমীরা ইতোমধ্যেই হয়তো লা লা ল্যান্ডের জয়জয়কার শুনেছেন। গোল্ডেন গ্লোব থেকে শুরু করে বাফটা এবং আস্কারে অনেক আলোড়ন হচ্ছে লা লা ল্যান্ড নিয়ে।

সেই মুভি এখন ঢাকায় যমুনা ফিউচার পার্ক সিনেপ্লেক্স-এ দেখানো হচ্ছে। রোমান্টিক মিউজিকাল মুভিটি প্রিয় মানুষকে নিয়ে বড় পর্দায় দেখে আসতে পারেন।

এই মুভি যারা দেখতে যাবেন তারা এই দিনে নিশ্চয় এর সাথে স্ন্যাকস খাবেন। এতে করে মুভি থিয়েটারের আয় বৃদ্ধির সাথে সাথে সেখানে রেস্টুরেন্টগুলোর আয়ের পরিমানও বেড়ে যাবে।

টেলিভিশন
ভালোবাসা দিবসকে সামনে রেখে পিছিয়ে নেই টেলিভিশনগুলোও। প্রতিটি টেলিভিশনই এই দিনকে সামনে রেখে তৈরি করেছে বিশেষ অনুষ্ঠান।

বিশেষ নাটক, লাইভ মিউজিক প্রোগ্রাম, ভালোবাসা টকশো ইত্যাদি ।

বিশেষ নাটক আবার তৈরি হয়েছে গল্প প্রতিযোগিতায় সেরা নির্বাচিত হওয়া গল্প নিয়ে।

তেমনি একটি নাটক ‘মা।

নাটকটি নির্মাণ করেছেন নির্মাতা মোস্তফা কামাল রাজ। নাটকটির নির্মাতা মোস্তফা কামাল রাজ বলেন, “মায়ের প্রতি সন্তানের ভালোবাসার গল্পকে ঘিরে আবর্তিত হয়েছে ‘মা’ নাটকের কাহিনি।

ভালোবাসা দিবসে আমরা সাধারনত আমাদের প্রেমিকাকে শুভেচ্ছা জানাই। কিন্তু আমি এই নাটকের মাধ্যমে সবাইকে একটি বার্তাই দিতে চেয়েছি আসুন ভালোবাসা দিবসে আমরা সবাই আমাদের মাকে শুভেচ্ছা জানাই।”

অন্যদিকে ২০১৬ সালে অনুষ্ঠিত ভালোবাসার গল্প নিয়ে প্রাণ ফ্রুটো লাভ এক্সপ্রেসের সাফল্যের পর এবার আয়োজিত হলো এই আয়োজনের দ্বিতীয় কিস্তি প্রাণ ফ্রুটো নিবেদিত লাভ এক্সপ্রেস টু।

গতবারের মত এবারও থাকছে ভালোবাসা দিবসের জন্য ১০টি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র। এবারের নির্বাচিত গল্পগুলো থেকে স্বল্পদৈর্ঘ্য সিনেমাগুলো নির্মাণ করেছেন মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ ও তানিম রহমান অংশু।

এখন আমাদের যোগাযোগ ব্যবস্থা অনেক পাল্টে গেছে। জীবনের বেশিরভাগই এখন দখল করে নিয়েছে অনলাইন। অনলাইনে পরিচয় এবং প্রেম। সেই সব গল্প থেকে বিজয়ী তিনটি গল্প নিয়ে তৈরি নাটক দেখানো হবে বাংলাভিশনে।

এই নাটকগুলোর সাথে জড়িত রয়েছে অভিনয় শিল্পী, নিমার্ণ কলাকুশলী, বিজ্ঞাপন বাণিজ্য এইসব মিলে সবারই ভালো আয় হবে এই দিনটিকে কেন্দ্র করে।

মোবাইল কম্পানি
মোবাইল ছাড়া এখন আমাদের জীবন এক মুহূর্তও কল্পনা করা যায় না। কাছে হোক বা দূরে হোক আমরা ভালোবাসার মানুষের সাথে কথা বলতে বা এসএমএস দিতে মোবাইল ব্যবহার করে থাকি।

ঘন্টার পর ঘণ্টা কথা বলে থাকি বা এসএমএস-এর পর এসএমএস পাঠিয়ে থাকি। এই জন্য অনেকেই মোবাইলে বেশি করে টাকা লোড করবেন। বেশি করে প্রেমালাপ করার জন্য বেশি করে খরচ করবেন।

এতে করে মোবাইল কম্পানিগুলোর আয়ের পরিমান বেড়ে যাবে। এবং এর সাথে জড়িত এজেন্টদের কমিশন থেকে আয়ও বেড়ে যাবে।

তবে শুধু কথা বা এসএমএস করিয়ে তারা কাস্টমারদেরকে সন্তুষ্ট রাখতে চাননি।

৭ ফেব্রুয়ারি থেকে গ্রাহকদের জন্য বিশেষ কুইজ প্রতিযোগিতা ‘লাভ স্কুটার’ এর আয়োজন করেছে মোবাইল ফোন অপারেটর রবি।

মাসব্যাপী চলা এ প্রতিযোগিতায় প্রথম বিজয়ী পুরস্কার হিসেবে পাবেন একটি ‘জেনন স্কুটার স্কাইলার্ক’ এবং দ্বিতীয় ও তৃতীয় পুরস্কার বিজয়ী পাবেন যথাক্রমে একটি ‘লেনোভো আইডিয়া প্যাড ওয়ান হান্ড্রেড- ফিফ্থ জেনারেশন আই থ্রি ল্যাপটপ ও ‘হুয়াওয়ে পিনাইন লাইট মোবাইল ফোন হ্যান্ডসেট’।

রেস্টুরেন্ট
প্রিয় মানুষকে নিয়ে খেতে সবাই পছন্দ করেন। ভালো ভালো খাবার, প্রিয় মানুষের সাথে বসে খাওয়ার পাশাপাশি নিরিবিলি সময় পার করা অনেকেরই পছন্দের।

তা ভেবেই বিভিন্ন রেস্টুরেন্টগুলো অফার দিচ্ছে তাদের গ্রাহকদের জন্য। কাপল বা ফ্যামিলি প্যাকেজ রয়েছে এই আফারের মধ্যে।

বিভিন্ন প্রাইজের অফার রয়েছে লা মেরিডিয়ান, নান্দোস, আমারি ঢাকাসহ বিভিন্ন রেস্টুরেন্টফুলোতে। রুফটফ ডিনার থেকে টি-কফি সবই এই অফারে রয়েছে।

এগুলোতো গেল অভিজাত রেস্টুরেন্ট-এর কথা। কিন্তু বিভিন্ন স্থানে, ফুটপাতে খাবারের দোকান, ফুসকা-চটপটির দোকানেও এই দিনে বিশেষ ভিড় দেখা যাবে। অন্যদিনের তুলনায় তাদের বিক্রির পরিমান এই দিনে নিশ্চয় বেড়ে যাবে।

কিন্তু এর বাইরে রয়ে গেছে রিকসাওয়ালা, সিএনজিওয়ালাদের বাড়তি ইনকাম, প্রিয় উপহার চকোলেট, কার্ড, মেয়েদের লাল শাড়ী এবং তার সাথে ম্যাচিং করে অন্যান্য পোশাক, পার্লারে মেয়েদের সাজ ইত্যাদি।

এই দিনকে কেন্দ্র করে ব্যবসায়ীরা একটা কাজ করতে পারেন, এই দিনে তাদের বিক্রির পরিমান কতো হয়েছে তা জানাতে পারেন তাদের সংগঠন এফবিসিসিআই এর মাধ্যমে। বা এফবিসিসিআই নিজেও উদ্যোগ নিয়ে এই কাজটি করতে পারে। তাহলে জানা যাবে এই দিনে ঠিক কতো টাকার ব্যবসা হয়েছে।

সবাই চান তার প্রিয় মানুষটিকে সবচেয়ে ভালো উপহার দিয়ে খুশি করতে। কিন্তু এই ভালো উপহার টাকার পরিমানের উপর নির্ভর করেনা।

মন থেকে যেকোন গিফট দিলে তা অনেক বড় উপহার হিসেবে সবাই গ্রহণ করে থাকেন।

তাই যারা মন খারাপ করেন টাকা নেই বলে, প্রিয় মানুষটিকে উপহার দেয়া হলো না বলে, তারা সবচেয়ে ভালো যে কাজটি করতে পারেন তাহলো প্রিয় কথাটি প্রিয় মানুষটিকে বলা। তাহলেই প্রিয় মানুষটি সবচেয়ে খুশি হবেন।

সবার এই দিনটি ভালো কাটুক।

হ্যাপি ভ্যালেন্টাইন ডে!!!

You Might Also Like

No Comments

Leave a Reply

Shares