Tax

ট্যাক্স রিটার্নে নগদ এবং ব্যাংক জমা কতো দেখাবেন?

May 29, 2020
cash disclosure in tax return

প্রতি বছর নভেম্বর মাসে যখন আয়কর মেলা আসে তখন সবাই রিটার্ন দাখিল করার জন্য ব্যস্ত হয়ে পড়েন। তখন সবচেয়ে বেশি যে প্রশ্নটি আমাকে করদাতারা করেন তার মধ্যে একটি হলো, ট্যাক্স রিটার্নে নগদ টাকা কতো দেখাবো?

ঠিক একই ধরনের প্রশ্ন করেন সোনা দেখানোর ক্ষেত্রেও। আজকে আমি এই লেখাটিতে আপনাদের সাথে আলোচনা করবো ট্যাক্স রিটার্নে নগদ এবং ব্যাংক জমা কতো দেখাবেন।

একজন ব্যাক্তি করদাতা কিভাবে কর গণনা করে রিটার্ন তৈরি করবেন তার উপর আমাদের অনলাইন ট্যাক্স কোর্স রয়েছে। খুবই অল্প খরচে সেরা ভিডিও টিউটরিয়ালের সাথে পাচ্ছেন, কর গণানা এবং রিটার্ন ফরমের এক্সেল সফট কপি।

আপনি এখনই কোর্স ফি পরিশোধ করে আপনার পছন্দের ট্যাক্স কোর্স শুরু করতে পারবেন। কোন নির্দিষ্ট সময়ের জন্য অপেক্ষা করতে হবে না। এবং আপনি যেদিন কোর্স কিনবেন সেদিন থেকে টানা ১৫ দিন যতোবার খুশি ততোবার দেখার সুযোগ পাবেন!

নগদ এবং ব্যাংক ব্যাল্যান্স আমরা সম্পদ, দায় ও ব্যয় বিবরণীতে দেখিয়ে থাকি। কিন্তু সবার জন্য এই বিবরণী দাখিল করা বাধ্যতামূলক না। সাধারনত যাদের মোট পরিসম্পদের পরিমান পচিশ লাখ টাকার উপরে কেবলমাত্র তাদেরকেই সম্পদ ও দায় বিবরণী দাখিল করতে হয়। কেউ চাইলে স্ব-প্রণোদিতভাবে জমা দিতে পারেন।

হাতে নগদ এবং ব্যাংক জমা কতো দেখাবেন তার উপর আমদের একটি ছোট ভিডিও রয়েছে। নিচে ক্লিক করে সেই ভিডিওটি দেখে নিতে পারেন।

হাতে নগদ কতো দেখাবেন?

সম্পদ, দায় ও ব্যয় বিবরণীতে আমরা ৩০ জুন তারিখের ব্যাল্যান্স দেখিয়ে থাকি। একটি কোম্পানির ব্যালন্স শিট এর মতো। তাই ৩০ জুন তারিখে আপনার হাতে নগদ টাকা যা আছে আপনি তাই লিখবেন।

তবে অনেক ক্ষেত্রেই আমি যখন ট্যাক্স রিটার্ন দেখি তখন লক্ষ্য করি, নগদের ঘরে অংকের পরিমান অস্বাভাবিক। কয়েক লক্ষ টাকা। আমি একটা রিটার্নে গত বছর ২২ লাখ টাকা দেখেছি।

আমি প্রথমে মনে করেছিলাম, হয়তো কোন সম্পদ বিক্রি করেছেন এবং সেদিন ব্যাংকে জমা দিতে পারেননি। তাই এতো টাকা হাতে নগদ রয়ে গেছে।

কিন্তু আমি যখন প্রশ্ন করি, তখন তিনি বলেন, গত বছর যাকে দিয়ে করিয়েছিলাম, তিনি পরামর্শ দেন বেশি করে দেখিয়ে দেওয়ার জন্য। পরে কাজে লাগবে।

এ কাজ ভুলেও করতে যাবেন না। যদি কোন কারনে আপনার ট্যাক্স ফাইল অডিটে পরে তাহলে আপনি এর জবাব দিতে পারবেন না। তখন আপনি আইনি ঝামেলায় পড়তে পারেন।

আপনি নগদ টাকার সাথে ব্যাংক ব্যাল্যান্স মিশাবেন না।

ব্যাংক ব্যাল্যান্স কতো দেখাবেন?

৩০ জুন তারিখে আপনার ব্যাংক ব্যাল্যান্স যা আছে আপনি তাই দেখাবেন।

আপনার যদি একাধিক ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থাকে তাহলে আপনি সবগুলো ব্যাংক ব্যাল্যান্স যোগ করে দেখাবেন।

আপনি যখন ট্যাক্স রিটার্ন তৈরি করবেন তার আগে আপনার যতোগুলো ব্যাংক অ্যাকাউন্ট আছে তার সব ব্যাংক স্ট্যাটমেন্ট কালেক্ট করুন। এবার একে একে সব ব্যাল্যান্স যোগ করে ব্যাংকের ঘরে লিখুন।

নগদ টাকা বেশি দেখালে কোন লাভ আছে?

এই প্রশ্ন আমাকে অনেক করদাতাই করে থাকেন। আমার ব্লগে যারা ট্যাক্স রিলেটেড আরটিকল পড়েন এবং ট্রেইনিং করতে আসেন তারা যেমন জানতে চান। আবার তেমনি পরিচিতজনদের মধ্যে থেকেও কেউ কেউ জানতে চান।

এর সোজা উত্তর হলো, বেশি দেখালে ঝামেলা বাড়বে।

আসলের চেয়ে অর্থাৎ ৩০ জুন তারিখে আপনার হাতে যা আছে আপনি তাই দেখাবেন। এখন আপনি হয়তো বলবেন, ট্যাক্স রিটার্ন তৈরি করি নভেম্বর মাসে। আর হাতে নগদ দেখাতে হবে ৩০ জুন তারিখে। এতো আগের ব্যাল্যান্স কিভাবে মনে থাকবে?

এটা ঠিক।

তবে আপনি ভাবুন, আমাদের হাতে তেমন নগদ টাকা থাকে না। আমরা সাধারনত যখন টাকা দরকার হয় তখন কার্ড দিয়ে বুথ থেকে তুলে নেই। আপনি অনুমান করে কাছাকাছি একটি অংক লিখে দিতে পারেন।

তবে অবশ্যই মনে রাখবেন, তা যেন অস্বাভাবিক মনে না হয়।

You Might Also Like

1 Comment

  • Reply Saiful August 15, 2020 at 7:24 am

    বেকার কিনতু Fdr, sp 30 লাখ এর উপর আছে, ২০১৮ সালে চাকুরী অবস্থায় অফিস থেকে Tin করে,এখন কি রিটর্ন দিতে হবে

  • Leave a Reply

    Shares
    error: Content is protected !!